শুরুতে বলে নেই পোস্টটি সবার জন্য বড় হতে পারে, তবে একজন নতুন গ্রাফিক্স ডিজাইনারে সম্পূর্ণ গাইড লাইন এখানে তুলে ধরা হয়েছে। আশা করি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পড়বেন। বাংলায় এ রকম Total Graphic Design and Freelancing Solution নিয়ে পোস্ট খুবই কম পাবেন। তাছাড়া কিছু গুরুত্বপূর্ণ ওয়েব সাইটের ঠিকানা আছে যা পুরাতন গ্রাফিক্স ডিজাইনাদের কাজে আসবে।

ফেইসবুকের পাতা খুললেই দেখা যা যে, Graphic Design শিখতে অনেকই আগ্রহী কিন্তু তারা জানে না কার কাছে এবং কোথায় গিয়ে শিখবে? সঠিক গাইড লাইনেরর অভাবে তারা এখনো বসে আছে। আজকের এই পোষ্টটি একেবারে নতুন যারা Graphic Design শিখতে চান তাদের জন্য এই গুরুত্বপূর্ণ টিপস। আজকের এই পৃথিবী সবচেয়ে চাহিদা সম্পন্ন একটি প্লাটফ্রম বলতে হয়। দিন-দিন গ্রাফিক্স ডিজাইনারদের চাহিদা বাড়ছে দেশে-বিদেশে। ঘরে বসে মেয়েরাও এটি শিখতে পারেন এই কাজটি খুব সহজে।

গ্রাফিক্স ডিজাইন কি?

প্রথমে আপনার মনে আসতে পারে গ্রাফিক্স ডিজাইন কি? পৃথিবীতে এমন কিছু আছে যাতে গ্রাফিক্স ডিজাইন না নেই চোখের সামনে যা কিছু আছে সব কিছুতে একটা ডিজাইন আছে। ডিজাইন ছাড়া কোন কিছু হয় না। পৃথিবীর সৃষ্টির শুরু থেকেই একটা ডিজাইন ছিল, ডিজাইন হচ্ছে এবং ডিজাইন থাকবে। এবার আপনি লক্ষ্য করুন আপনার আপনার আশে পাশের যাবতীয় বস্তুগুলোর দিকে ভালোভাবে লক্ষ্য করলে দেখতে পাবেন প্রত্যেকটি জিনিসে একটা ডিজাইন আছে তার তা হলে গ্রাফিক্স ডিজাইন।

গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে কত দিন লাগবে?

শুরুতে আপনার ধৈয্য ধরতে হবে। এক দিন দুদিন বা এক মাসে এক লাফে কেউ কোন দিন গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে পারবে না। কমপক্ষে হলেও পাঁচ থেকে ছয় মাস আপনাকে প্রচুর সাধনা এবং অক্লান্ত পরিশ্রম করতে হবে। ভালভাবে শিখতে পারলে গ্রাফিক্স ডিজাইনের উপর অনেক চাহিদা রয়েছে এবং ফ্রিল্যান্সিং এ প্রচুর কাজ পাওয়া যাবে।

কার কাছে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখব?

দিন দিন গ্রাফিক্স ডিজাইনের ব্যপক চাহিদা বাড়ছে তার সাথে সাথে বাড়ছে বিভিন্ন নামের শত-শত ট্রেনিং সেন্টারে। সেখানে গিয়ে একটা নির্দিষ্ট কোর্স ফি দিয়ে আপনি শিখতে পারবেন অথবা আপনি ঘরে বসে অনলাইনের মাধ্যমে ইউটুবেও শিখতে পারবেন। আমি নিচে বেশ কিছু ইউটুব চ্যানেলএর লিংক দিয়ে দিব সেখানে আপনি বাংলাদেশের অনেক বড় বড় গ্রাফিক্স ডিজাইনারদের ইউটুব চ্যানেল থেকে ফ্রিতে শিখতে পারবেন। ভাল মানের একজন প্রফেশনাল গ্রাফিক্স ডিজাইনার হওয়ার জন্য নিচের চ্যানেলগুলো আপনার জন্য যথেষ্ট।

আপনি শিখতে পারেন Learn With Shohagh ইউটুব চ্যানেল থেকে। সেখানে গিয়ে PLAYLIST ক্লিক করে অসংখ্য টি-শার্ট ডিজাইন, লোগো ডিজাইন এবং ফ্রিল্যন্সিং এর টিউটোরিয়াল পাবেন। লিংক – https://bit.ly/2kUdq21

আপনি শিখতে পারেন Graphic School ইউটুব চ্যানেল এর রাসেল আহমেদ এর কাছে থেকে। এই চ্যানেলে প্রচুর পরিমানের গ্রাফিক্স ডিজাইন এবং ফ্রিল্যন্সিং রিসোর্স পাবেন। লিংক – https://bit.ly/2Wypw4D

আপনি শিখতে পারেন Abu Naser ইউটুব চ্যানেল এর আবু নাছের এর কাছে থেকে। এই চ্যানেলে প্রচুর পরিমানের গ্রাফিক্স ডিজাইন এবং ফ্রিল্যন্সিং রিসোর্স পাবেন। লিংক – https://bit.ly/2W5EVFg

ভেক্টর ফাইল Free Vector / Template :

অনেক সময় নতুন ডিজাইনারা ভাবেন যত Print Design আছে, যেমন Business Card, ID Card, Gift Card, Broshior, Flyer, Lather Had, Roll-up-Banner, Web Baner, CV, Invoice, Web Baner এগুলোর Template কোথায় পাওয়া যায়? যে Template গুলো এডিট করে আমরা আমাদের মত ব্যবহার করতে পারি।
আবার অনেক সময় দেখা যায় ক্লাইন একটা Business Card এর অর্ডার করল। এখন আপনি বুঝতে পারছেন না কি ডিজাইন করবেন বা যদি আপনি এটির Print Damnation, Color + Typography এর সঠিক ব্যবহার না জানেন তাহলে আপনাদের Design Perfect হবে না!

তাই একজন Graphic Designer হিসেবে অবশ্যই Free Vector Website সম্পর্কে জানা উচিৎ। আজ আমি আপনাদেরকে এমন কিছু অসাধারণ ওয়েব সাইটের ঠিকানা দিব এখান থেকে আপনি প্রিমিয়াম টাইপের বিভিন্ন এলিমেন্ট ডাউননোলোড করতে পারবেন। যা আপনার ডিজাইনকে আরো আকর্ষনীয় করে তুলতে সাহায্য করবে।
এই সাইটগুলোতে আপনি নিয়মিত ভিজিট করতে হবে। কারণ এসব সাইটে বিশ্বের বড় বড় ডিজাইনারা তাদের ডিজাইন নিয়মিত আপলোড করে থাকেন। তারা আসলে তাদের ডিজাইনে কি কি এলিমেন্ট ব্যবহার করে, তাই এই সাইটগুলোতে আপনি ভিজিট করলে অনেক কিছু শিখতে পারবেন এবং যখন আপনি ডিজাইন করতে বসবেন তখন আপনার মাথায় অনেক নতুন নতুন Creative Design Idea Automatic চলে আসবে। So একজন ডিজাইনার হিসাবে আপনাকে অবশ্যই এসব সাইট ফলো করতে হবে। এবং তাদের ডিজাইনগুলো হুবহু কপি করতে হবে। তাতে করে আপনার ডিজাইন সেন্স অনেকগুণ বেড়ে যাবে। এক সময় ডিজাইন কপি করতে করতে যখন ক্লাইন্টের কোন ডিজাইন করতে বসবেন তখন আর আপনার কারো কাছ থেকে ডিজাইন আইডিয়া জেনারেট করার প্রয়োজন পড়বে না। অটোমেটিক্যালি আপনার মাথায় ডিজাইন চলে আসবে। এককথায় নিজের স্কিল ডেভলাপ করতে, নিজেকে একজন দক্ষ প্রফেশনাল গ্রাফিক্স ডিজাইনার হিসেবে তৈরী করতে এই সকল ওয়েব সাইট ভিজিট করা ছাড়া কোন উপায় নেই।
নিচে বেশকিছু Free Template Website Link আপনাদের জন্য দেওয়া হল।

https://www.freepik.com/
https://all-free-download.com/
https://freedesignfile.com/
https://www.brandeps.com/
https://365psd.com/
http://psdkeys.com/
https://www.vexels.com/
https://www.1001freedownloads.com/
https://creativemarket.com/
https://depositphotos.com/
https://www.shutterstock.com/
https://www.istockphoto.com/
https://www.vecteezy.com/
https://www.vectorstock.com/
https://www.storyblocks.com/
https://www.123rf.com/
https://www.vectorstock.com/
https://www.flaticon.com/

কালার গ্রেডিয়েন্ট Gradient :

ডিজাইনের মূল বিষয় হচ্ছে কালার! একজন ডিজাইনার হিসেবে আমরা চাইলেও যে কোন ডিজাইনে ইচ্ছা মত কালার ব্যবহার করতে পারব না। কারণ কালার ব্যবহারের একটা রুলস আছে।
নিচে আমি আপনাদের জন্য বেশ কিছু কালারের Gradient এর ওয়েব সাইট লিঙ্ক শেয়ার করেছি এই কালারের রুলস অনুযায়ী কাজ করেন তাহলে অনেক ভাল ভাল ডিজাইন আপনারা করতে পারবেন। যদি এই রুলস না মেনে চলেন তাহলে আপনার ডিজাইন সুন্দর নাও হলে পারে। তাছাড়া একজন ডিজাইনার হিসেবে অবশ্যই কালার সেন্স এর বিষয়ে খুব ভাল আইডিয়া থাকতে হবে।

https://uigradients.com/
https://colorfulgradients.tumblr.com/
https://www.toutes-les-couleurs.com/
https://webgradients.com/
https://gradienty.tumblr.com/
https://webkul.github.io/

কালার কোড Color Code :

কালারের পাশাপাশি বিভিন্ন কালার কোডের প্রয়োজন পড়ে সে সকল সাইটের লিংক নিম্নে দেওয়া হল।

https://www.materialui.co/flatuicolors
http://colorhunt.co/
http://www.flatuicolorpicker.com/
http://flatcolors.net/
https://flatuicolors.com/

ফ্রি ছবি ডাউনলোড Free HD Image Download :

আমাদের ডিজাইনে বিভিন্ন সময় ইমেজ ব্যবহারের প্রয়োজন পড়ে। তখন আমরা গুগল এর সার্চ করে বাজে ধরনের একটা ছবি বসিয়ে দেই। কিন্তু এটা ডিজাইনের জন্য খুবই খারাপ। বা কপিরাইট বিভিন্ন ইসু দেখা দিবে। তাই আমি আপনাদেরকে বেশ কিছু ফ্রি তে হাই কোয়ালিটির ছবি ব্যবহার করা যাবে এবং কপিরাইট কোন সমস্যা হবে না, নিশ্চিন্তে সেই ছবিগুলো ব্যবহারর করতে পারবেন এমন কিছু ওয়েব সাইটের লিস্ট নিচে দিয়ে দিলাম।

http://crowthestone.com/
http://moveast.me/
http://travelcoffeebook.com/
http://cupcake.nilssonlee.se/
https://pixabay.com/
https://www.splitshire.com/
http://snapwiresnaps.tumblr.com/
http://www.stock-image-point.com/
https://picography.co/
http://isorepublic.com/
http://join.deathtothestockphoto.com/
http://superfamous.com/
https://unsplash.com/
http://nos.twnsnd.co/
http://www.freeimages.com/
http://magdeleine.co/
http://www.designerspics.com/
http://littlevisuals.co/
https://mmtstock.com/
http://kaboompics.com/
http://epicva.com/
http://startupstockphotos.com/
https://www.gratisography.com/
http://jaymantri.com/
https://www.foodiesfeed.com/
http://realisticshots.com/
http://www.resplashed.com/
http://stokpic.com/
https://picjumbo.com/

ফ্রি মোকাপ Free mockup :

ডিজাইনকে আকর্ষনীয় করে তুলতে মোকাপ করাটা অত্যান্ত জরুরী। তাছাড়া ক্লাইন্টের কাছে ডিজাইন সো করাতে অথবা পোর্টফুলিও সাজাতে মোকাপ এর প্রয়োজন পড়ে। তাই নিচের ওয়েবসাইট গুলো থেকে আপনারা এই ফ্রি মোকাপ ডাউনলোড করে নিতে পারেন।

মোকাপ কিভাবে তৈরী করা হয় ইউটুবে How to Design Mockup in Photoshop _ Adobe Photoshop Tutorial সার্চ করে দেখে আসতে পারেন।

মোকাপ ডিজাইনে কিভাবে ব্যবহার করা হয় ইউটুবে Business Card Presentation for Client _ Behance _ Graphicriver _ Contest – Business Card Free Mockup – YouTube এই নাম সার্চ করে দেখে আসতে পারেন।

https://graphicburger.com
https://mockupworld.co
https://cssauthor.com
https://ampower.me
https://mockupfree.co
https://graphicpear.com
https://pixeden.com
https://psdkeys.com

ফন্ট Free Font :

ডিজাইনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে টাইপোগ্রাফি। আর টাইপোগ্রাফির জন্য সবচেয়ে আমার Best কিছু সাইটের লিংক নিচে আপনাদেরকে দিয়ে দিলাম। এখানে আপনি বিভিন্ন ক্যাটাগরির ফন্ট নিয়ে আপনার ডিজাইনের কাজে ব্যবহার করতে পারবেন। তবে আপনারা যে কোন ডিজাইনে ইচ্ছামত ফন্ট ব্যবহার করতে পারবেন না। ফন্ট ব্যবহারের একটা রুলস আছে। যদি সেই রুলস অনুযায়ী ডিজাইন করেন তাহলে আপনার সেই ডিজাইনটি দেখতে সুন্দর দেখাবে। আর ডিজাইনে ফন্ট কিভাবে ব্যবহার করবেন, কি ফন্ট ব্যবহার করবেন, কোথায় থেকে আইডিয়া জেনারেট করবেন এর জন্য চমৎকার একটি মার্কেটপ্লেস হচ্ছে envatomarket এখানে বিভিন্ন ক্যাটাগরিরর প্রিন্ট ডিজাইন দেখতে পারবেন এবং তারা ডিজাইনে কোথায় কি কি ফন্ট ব্যবহার করছে তা দেখতে পারবেন। তাছাড়া ফন্টটের নামও দেখতে পারবেন। আরও যদি ফন্ট নিয়ে বিস্তারিত জানার থাকে তাহলে Learn With Shohagh ইউটুব চ্যানেল একটি বাংলায় একটি ভিডিও আছে আপনার এই ভিডিওটি দেখতে পারেন। ইউটুবে গিয়ে এই নামটি সার্চ দিলে চলে আসবে – Best Font for Your Design – Logo _ T-Shirt _ Web _ Print Design – YouTube

https://www.fontspring.com/
http://www.dafont.com/
https://www.whatfontis.com/

পোর্টফুলিও Portfolio :

আপনি যথ বড় ডিজাইনার হন না কেন যদি আপনার Portfolio না থাকে, তাহলে আপনি কোন Designer না! কারন অনলাইনে কোন মার্কেট প্লেসে বিড করতে গেল আপনার একটা পোর্টফুলিও একাউন্ট থাকতেই হবে। ক্লাইন্ট এর কাছ থেকে কাজের অর্ডার পেতে হলে অবশ্যই আপনার একটা Portfolio account থাকা জরুরী এবং পোর্টফুলিওতে আপনার সেরা ডিজাইনগুলো সাবমিট করতে হবে। Portfolio site এর মধ্যে আমার Behance সবছে ভাল লাগে। কারণ এখানে ডিজাইন প্রজেক্ট আকারে সাবমিট করা যায়। আপনি যদি সেই লেভেলের একজন ডিজাইনার হন Behance এ ভাল একটা পোর্টফুলিও সাজিয়ে রাখতে পারেন তাহলে Behance থেকেও অনেক অনেক ক্লাইন্টের কাজের অর্ডার পাবেন।

নিচে দুটি পোর্টফুলিও সাইটের ওয়েবসাইট এর লিঙ্ক দেওয়া আছে। এখান থেকে আপনার একটা একাউন্ট করে নিতে পারেন।

https://www.behance.net/
https://www.flickr.com/

অনলাইনে নিজেকে পরিচিতি (প্রমোট) করা Online Promote :

সত্যিই যদি আপনারা অনলাইন থেকে টাকা আয় করতে চান। নিজেকে প্রথমে অনলাইনে প্রমোট করতে হবে। আর অনলাইনে নিজের পরিচিতি বাড়ানো বেশ কিছু মাধ্যম আছে ফ্রি এবং পেইড। এখন আমি যে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করব সে বিষয়টি হচ্ছে ফ্রিতে কিভাবে নিজেকে অনলাইন দুনিয়ায় প্রমোট করাবেন। আপনারা যে প্রফেশন নিয়ে কাজ করেন না কেন সেটা হতে পারে Graphic Design, Web Design, SEO, Content Writing, Video Editing, Photography ইত্যাদি ইত্যাদি। আমরা সকলেই বিভিন্ন সোস্যাল মিডিয়া বিনোদনের জন্য ব্যবহার করি। কিন্তু এই Social Media কে বানিজ্যিক ভাবে ব্যবহার করতে হবে। হয়তো আপনাদের মাথায় এখন প্রশ্ন আসছ তা কিভাবে। হ্যা ব্যপারটা একেবারেই সিম্পল। এখানে আমি সংক্ষিপ্ত আকারে বলছি, সহজে বুঝে যাবেন। প্রায় সকল সোস্যাল মিডিয়ার একটা বৈশিষ্ট্য রয়েছে সেটা হচ্ছে – তাদের কাভার ইমেজ ও প্রফাইল ফটো সেকশন এবং এ্যাবাউট আস। এই তিনটি সেকশনটাতে আপনাদের বেশি ফোকাস দিতে হবে।

কাভার ফটো Cover Image :

যেমন কাভার ইমেজ ব্যবহার করতে হবে ইউনিক প্রফেশনাল টাইপের। এখানে আপনাদের কাজের সিম্পল ডিটেলস্ দেওয়া থাকবে। আপনি কি কাজ করেন, আপনার ফোন নাম্বার, ইমেল আইডি, আপনার পোর্টফুলিও এতঠুকু হলেই যথেষ্ট।

প্রফাইল ছবি Profile Image :

আর দ্বিতীয় নাম্বারে আপনার প্রফাইল পিকচারও হতে হবে প্রফেশনাল টাইপের হাসিমুখের থাকতে হবে। যাতে কোন এক বায়ার আপনার প্রফাইল পিকচার দেখে বুঝতে পারে আপনি হাসিখুশি মনের মানুষ। তাতে করে বায়ারের কাছ থেকে কাজ পেতে সহজ হবে। আপনি যথপ্রকার মার্কেটপ্লেস বা সোস্যাল মিডিয়া ব্যবহার করেন না কেন সব জায়গাতে একই প্রফাইল পিকচার থাকতে হবে।

নিজের নাম Your Name :

একটি কথা ভুলে গিয়েছিলাম সেটি হচ্ছে সোস্যাল মিডিয়াতে আপনার নাম ব্যবহার। নাম হতে হবে আপনার নিজের নাম। সবজায়গাতে একই নাম ব্যবহার করতে হবে। কোন এক বায়ার আপনাকে দিয়ে একটা কাজ করাল, কিছুদিন পরে আবার আরেকটি কাজের তার প্রয়োজন পড়ছে যদি সে মার্কেটপ্লেসে আসে বা সোস্যাল মিডিয়ায় আসে হয়তো দেখতে পেল আপনার নাম ও ছবি তখন সাথে সাথে কাজটি আপনাকে দিয়ে দিল।
একই ধরণের ছবি এবং নাম ব্যবহারের প্রধান সুবিধা হল গুগল রেঙ্কিং এর আসা। যদি আপনি সবজায়গাতে সঠিক ভাবে একই তথ্য ব্যবহার করেন তাহলে বায়ার গুগলে আপনার নাম বা ছবি দিয়ে সার্চ দিলে সহজে পেয়ে যাবে।

নিজের সম্পর্কে About Us :

সর্বশেষ যে কথাটি হচ্ছে সেটি About Us । হতে হবে সংক্ষিপ্ত আকারে, আপনার নিজের সম্পর্কে, আপনি কি কাজ পারেন, কতদিনের এক্সপেরিয়েন্স এতঠুকু।

বনাস Bones :

কোন কোন সোস্যাল মিডিয়াতে একাউন্ট তৈরি করলে আপনি দ্রুত নিজেকে সবার মাঝে পরিচিতি বাড়াতে পারবেন সেই সকল ওয়েব সাইটের লিস্ট নিচে দেওয়া হল। এই সকল সাইটে আপনার একঠু সময় ব্যায় করে প্রফাইল ভাল ভাবে তৈরী করে নিয়মিত আপনার কাজ রিলেটেড একটি দুটি পোস্ট করবেন। এবং অন্যদের পোস্টে ভাল ভাল কমেন্ট করবেন। বিভিন্ন টিপস্ এন্ড ট্রিক্স শেয়ার করবেন। দেখবেন কাজ পাওয়ার জন্য আর মার্কেট প্লেস আর ঘুরতে হবে না Social Media থেকে অনেক ক্লাইন্ট আপনাকে হায়ার করে নিবে।

https://web.facebook.com/
https://www.linkedin.com/
https://www.instagram.com/
https://twitter.com/
https://www.quora.com/
https://www.slideshare.net/
https://www.tumblr.com/
https://medium.com/
https://vimeo.com/
https://myspace.ge/
https://www.reddit.com/
https://www.last.fm/
https://soundcloud.com/
https://github.com/
https://deviantart.com/

মার্কেট প্লেস Market Place :

এতদিন আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখেছেন। অনেক কিছু ডিজাইন করে ভাল একটা পোর্টফুলিও তৈরী করেছেন। নিজের একটা ভাল প্রফেশন তৈরী করেছেন। আপনি একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনার। এখন কি আপনার বসে থাকলে চলবে? অবশ্যই না। আপনাকে এখন freelancing করে ইনকাম করতে হবে। আর ইনকাম করার জন্য গ্রাফিক্স ডিজাইনারদের কাজের কোন শেষ নেই। তাই আপনি কোথায় কাজ করবেন। কোন মার্কেট প্লেসে কাজ করবেন এর জন্য আমি আপনাদেরকে বেশ কিছু জনপ্রিয় Market Place Address নিচে দেওয়া হয়েছে। যে মার্কেট প্লেসগুলোতে কাজ করলে Online Many Income করা সম্ভব। আপনি চাইলে এ সকল মার্কেট প্লেস ঘুরে দেখতে পারেন, অন্যান্য ডিজাইনারা তাদের ডিজাইন কিভাবে সাবমিট করছে। কীভাবে তাদের ডিজাইন সেল হচ্ছে।
এই সকল মার্কেট প্লেসের প্রধান শর্ত হচ্ছে, আপনারা কেউ কখনো কাজ না জেনে থাকলে একাউন্ট তৈরী করবেন না। কারণ এখানে যে সকল বায়ারা আছে সবাই বাহিরের দেশের। হঠাৎ কোন একজন বায়ার আপনাকে না জানিয়ে একটা কাজের অর্ডার করে দিয়ে চলে গেল, বা একটা কাজের অফার করল যদি না সেই কাজটি আপনি সঠিক ভাবে ডেলিভারী করতে না পারেন, তাহলে খারাপ একটি রিভিউ আপনাকে দিয়ে বসবে। অথবা বাংলাদেশি ফ্রিল্যান্সারদের উপর খারাপ প্রভাব পড়বে। তাই আপনারা ভাল ভাবে কাজ করেন, কাজ শিখেন তারপর আপনারা কাজে লেগে জান।

https://www.fiverr.com/
https://www.upwork.com/
https://www.99designs.com/
https://graphicriver.net/
https://freelancer.com/
https://www.peopleperhour.com/
https://www.designhill.com/

টি-শার্ট ডিজাইন T-shirt Design :

আপনি যদি টি-শার্ট ডিজাইন করতে পছন্দ করেন বা টি-শার্ট ডিজাইন নিয়ে কোন একটি মার্কেটপ্লেসে কাজ করতে চান, তাহলে আপনার জন্য বেস্ট হবে teespring, viralstyle, redbubble এই সব মার্কেটপ্লেস এখানে আপনি আপনার ডিজাইন সাবমিট করলে তারা সাথে সাথে আপনার ডিজাইনটি, টি-শার্টে মোকাপ করে দিবে। যদি আপনার কোন পোডাক্ট কেউ এখান থেকে কিনে তাহলে আপনিও একটি পার্সেন্টটিজ পাবেন। আমি নিজেও এসব মার্কেটপ্লেসে কাজ করি। টি-শার্ট ডিজাইন করা শিখার জন্য Learn With Shohagh এই ইউটুব চ্যানেলটি আপনাদের বেস্ট হবে। আর TEESPRING এ কিভাবে ডিজাইন সাবমিট করবেন তার বিস্তারিত বিষয় Graphic School এর রাসেল আহমেদ এর ইউটুব চ্যানেলে পাবেন।

https://www.redbubble.com/
https://teespring.com/
https://viralstyle.com/

পেমেন্ট Payment :

ফ্রিল্যান্সিং freelancing শুরু করবার পূর্বেই নতুনদের মধ্যে একটা জিনিস কাজ করে Payment নিয়ে বিভিন্ন জনের কাছে নানান প্রশ্ন। কিভাবে টাকা আসবে? কোথায় থেকে টাকা তুলব? কোন ব্যাংকে একাউন্ট করব? মাস্টার কার্ড কোথায় পাব? মার্কেট প্লেস থেকে ব্যাংকে কিভাবে টাকা ট্রান্সফার করব? ইত্যাদি আরো নানান ধরণের প্রশ্ন মাথায় এসে ঘুরপাক খায়। সাভাবিক আসতেই পারে কারণ Payment এর জন্যই ত freelancing করা। তাই এই সকল প্রত্যেকটি প্রশ্নের সমাধান আপনারা Abu Nasir ভাইয়ের ইউটুব চ্যানেলে payoneer account নিয়ে বেশ কিছু ভিডিও টিউটরিয়াল দেওয়া আছে। আপনারা যেখানে গিয়ে একঠু ঘাটাঘাটি করলেই সেই সকল কাঙ্কিত প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন। https://payoneer.com/

ইংরেজি শেখা Learn English :

অনলাইনে ফ্রিল্যান্সিং freelancing করতে গেলে ইংরেজি রাইটিং এ ভাল হতে হবে। কারন মার্কেপ্লেসে বাংলাদেশের কোন বায়ার আপনাকে হায়ার করবে না। সবই বাহিরের দেশের তাদের সাথে কমিউনিকেশন বিল্ডআপ করার জন্য অবশ্যই আপনাকে ইংরেজিতে মোটামোটি দক্ষ হতে হবে। ইংরেজি না জানলে ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে একাউন্ট তৈরি করে কোন লাভ হবে না। এখানে আপনার কাজের ডিল হবে ইংরেজিতে ম্যাসেজের মাধ্যমে, তাই অবশ্যই আপনার ইংরেজি শেখাটা অত্যান্ত জরুরী। বিভিন্ন ইউটুব চ্যানেল থেকে আপনি ইংরেজি শিখে নিতে পারেন। তাছাড়া আপনি Dadar School, SHAFIN’S, Saifurs Education এদের ইউটুব চ্যানেল থেকে ফ্রিতে ইংরেজি শিখতে পারবেন। অথবা সরাসরি SHAFIN’S, Saifurs Education তাদের প্রতিষ্ঠান থেকেও ইংরেজি শিখে নিতে পারেন। সিলেটে আমার জানামতে SAIFUR’S তিনটি শাখা আছে – শিবগঞ্জ, আম্বরখানা, জল্লাপার রোড। তাছাড়া সারা বাংলাদেশে তাদের বিভিন্ন শাখা আছে আপনারা একঠু খুজ করলে পেয়ে যাবেন।

ইংরেজি শিখার ওয়েব সাইট :

ইংরেজি বুঝতে পারবেন এবং কিছুটা হলেও জানতে পারবেন নিচে কয়েকটি ওয়েব সাইটের লিংক দেওয়া আছে। আপনারা একঠু কষ্ট করে ভিজিট করে দেখতে পারেন।

https://www.ted.com
https://www.manythings.org
https://www.dictionary.com
https://www.penpalworld.com

দীর্ঘ পোস্টটি সম্পর্কে আপনার মতামত নিচের কমেন্ট বক্সে জানান। যদি মনে করেন এই পোস্টটি দ্বারা একঠু হলেও উপকার এসেছে তাহলে পোস্টটি শেয়ায় করতে ভুলবেন না। আর এই জাতীয় নতুন নতুন টিপস্ এন্ড ট্রিক্স নিয়মিত আপডেট পেতে uzzalahmed.com গুগল এ সার্চ করলে পেয়ে যাবেন এবং ওয়েব সাইটটির ব্লগ অপশনের মধ্যে যাবতীয় টিপস্ পাবেন। এতক্ষণ আমার সাথে থাকার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে আজকের মত শেষ করছি।

Tags :

to learn graphic design skills online
can you learn graphic design on your own
can anyone learn graphic design
can you learn graphic design at home
can i learn graphic design online free
books to learn graphic design
where to learn graphic design in lagos
how to learn graphic design for beginners
apps to learn graphic design
how learn graphic design
how to learn graphic design online
how to learn graphic design in bangla
how to learn graphic design in photoshop
how to learn graphic design pdf
how to learn graphic design for beginners
how to learn graphic design in bangla pdf
how to learn graphic design in bangla
how to learn graphic design step by step
how to learn graphic design wikihow
how to learn graphic design bangla tutorial
how to learn graphic design fast
how to learn graphic design skills
how to learn graphic design for games
how to learn graphic design online for beginners
how to learn graphic design youtube
how learn graphic design
how to learn graphic design online
how to learn graphic design reddit
how to learn graphic design without school
how to learn graphic design in bangla
how to learn graphic design quora
how to learn graphic design in photoshop
how to learn graphic design pdf
how to learn graphic design for beginners
how to learn graphic design in bangla pdf
how to learn graphic design by myself
how to learn graphic design step by step
how to learn graphic design bangla tutorial
how to learn graphic design fast
how to learn graphic design skills
how to learn graphic design online for beginners
how to learn graphic design youtube
where to learn graphic design
where to learn graphic design online
where to learn graphic design
where to learn graphic design online
you learn graphic design
can i learn graphic design online
can i learn graphic design by myself
can you learn graphic design online
can anyone learn graphic design

Hits: 722

(3) Comments

  1. অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাকে..পোষ্টটি পড়ে অনেক কিছু জানতে পারলাম

    1. অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাকেও আমার এই পোস্টটি পড়ার জন্য। আসা করি সবসময় পাশে থাকবেন। যাতে করে গ্রাফিক্স ডিজাইন টিপস এন্ড ট্রিক্স নিয়ে নতুন কোন পোস্ট পড়ার জন্য।
      https://uzzalahmed.com/

  2. This post is really amazing. I had more question and doubt how we can use graphics card but after reading this error my all doubt was clear. thanks foe this useful post.

Leave A Comment

All fields marked with an asterisk (*) are required

three × 5 =

Shares